বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:২২ পূর্বাহ্ন

মেডিকেল সাইন্স দ্বারা প্রমাণীত নামাজের গুরুত্বপূর্ণ ১৫টি শারীরিক উপকারিতা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৭ জুলাই, ২০২১
  • ৩৭৫ Time View
Muslim man is praying in mosque

একজন মানুষের ঈমান গ্রহণের পরই যে কাজটি সর্ব প্রথম পালনীয় বা ফরজ ইবাদাত তা হল নামাজ । আল্লাহ তা’য়ালা আল কোরআনের ৬১ যায়গায় ( আয়াতে) প্রায় ৯১ বার নামাজ নিয়ে কথা বলেছেন এবং প্রতিদিন সব মুসলমানের জন্য পাঁচ ওয়াক্ত নামাজকে ফরজ করে দিয়েছেন । নামাজ হলো পরকালীন মুক্তির একমাত্র মাধ্যম। মৃত্যুর পর সর্বপ্রথম একজন ব্যক্তিকে নামাজের হিসেব দিতে হবে। যে ব্যক্তি নামাজের হিসাব সুন্দরভাবে দিতে পারবে, তার পরবর্তী হিসাব সহজ হয়ে যাবে।নামাজ নামাজ শুধুমাত্র পরকালীন কল্যাণ সাধনই করে না, বরং একজন নামাজীকে দুনিয়ায় সব ধরনের অশ্লীল ও অন্যায় কাজ থেকে বিরত রাখে। সুরা আন-কাবুতে আল্লাহ বলেন- اِنَّ الصَّلٰوةَ تَنْهٰى عَنِ الْفَحْشَآءِ وَ الْمُنْكَرِ١ অর্থঃ- ؕনিশ্চিতভাবেই নামায অশ্লীল ও খারাপ কাজ থেকে বিরত রাখে (আন- কাবুত; আয়াত- ৪৫) এছাড়াও নামাজের মাধ্যমে নামাজি ব্যক্তি অনেক শারীরিক উপকার লাভ করে। যা আজ বৈজ্ঞানিক ও মেডিকেল সাইন্স দ্বারা প্রমাণিত। যার মধ্য থেকে ১৫টি উপকারের কথা এখানে উল্লেখ করা হলোঃ- ১) কোমর ও হাঁটুর ব্যথা উপশম হওয়াঃ- নামাজি ব্যক্তি যখন রুকু করে এবং রুকু থেকে ওঠে সোজা হয়ে দাঁড়ায় তখন মানুষের কোমর ও হাঁটুর ভারসাম্য রক্ষা হয়। রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পায়। ফলে কোমর ও হাটু ব্যাথা উপশম হয়। ২) স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধিঃ- নামাজে যখন সিজদা করা হয় তখন নামাজি ব্যক্তির মস্তিস্কে দ্রুত রক্ত প্রবাহিত হয়। ফলে তার স্মৃতি শক্তি বহুগুণে বৃদ্ধি পায়। ৩) নামাজী ব্যক্তির একাগ্রতা ও মনোযোগ বৃদ্ধি পায়ঃ- মানুষ যখন নামাজে দাঁড়ায়; তখন সব চোখ সিজদার স্থানে স্থির থাকে। ফলে মানুষের একাগ্রতা ও মনোযোগ বৃদ্ধি পায়। ৪) অঙ্গ ও জোড়া গুলোর উন্নতি ও শক্তি বৃদ্ধি করেঃ- নামাজের সময় নামাজি ব্যক্তিকে দাঁড়ানো, রুকুতে যাওয়া, রুকু থেকে ওঠে সোজা হয়ে স্থির দাঁড়ানো, আবার সিজদায় যাওয়া, সিজদা থেকে ওঠে স্থিরভাবে বসা, আবার সিজদা দিয়ে দাঁড়ানো বা বসা।এ সবই মানুষের শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যায়াম এবং এতে করে অঙ্গ ও জোড়াগুলোর বর্ধন ও উন্নতি এবং শক্তি বৃদ্ধি পায়। ৫) মানসিকতার পরিবর্তনঃ- নামাজের মাধ্যমে মানুষের মন ও মানসিকতায় অসাধারণ পরিবর্তন আসে। গোনাহ, ভয়, নীচুতা, হতাশা, অস্থিরতা, পেরেশানি ইত্যাদি দূরভীত হয়। ফলে বিশুদ্ধ মন নিয়ে সব কাজে সম্পৃক্ত হওয়া যায়। ৬) ত্বকের লাবণ্যতা বৃদ্ধি পায়ঃ- নামাজের জন্য মানুষকে প্রতিদিন পাঁচবার অজু করতে হয়। আর এতে মানুষের ত্বক পরিষ্কার থাকে। ওজুর সময় মানুষের দেহের মূল্যবান অংশগুলো পরিষ্কার হয় এবং বার বার ম্যাসেস এর ফলে মুখমণ্ডলে রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি পায়। ফলে মানুষের চেহারার লাবন্যতা বৃদ্ধি পায় ( চলবে,পরবর্তী পর্ব দেখতে, আমাদের সাথে থাকুন) (ডাঃ আব্দুর রহমান, কমলনগর।ইসলামী আর্টিক্যাল লেখক,০১৬১৬-৩৭০৩০)

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved © 2015 teamreportbd
কারিগরি সহযোগিতায়: Freelancer Zone
freelancerzone